কোটি ডলার চুরির দায়ে প্রকৌশলীর ৯ বছরের কারাদণ্ড

এক কোটি ডলারের বেশি চুরির দায়ে ৯ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ভ্লাদিমির কেভাশুক নামে এক তরুণ প্রকৌশলীকে। এছাড়া তাকে ৮৩ লাখ ৪৪ হাজার ৫৮৬ ডলার ফেরত দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সম্প্রতি সিয়াটলের ইউএস ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে তাকে এই সাজার রায় শুনিয়েছেন মার্কিন আইনজীবি ব্রায়ান টি. মোরান।

২৬ বছর বয়সী ভ্লাদিমির কেভাশুক সাবেক মাইক্রোসফট সফটওয়্যার প্রকৌশলী। তিনি ইউক্রেনের নাগরিক। ওয়াশিংটনের রেনটনে বসবাস করছিলেন তিনি।

ভ্লাদিমিরের বিরুদ্ধে দুটি ওয়্যার জালিয়াতি, ছয়টি মানি লন্ডারিং, দুটি পরিচয় জালিয়াতি, দুটি ভুয়া কর জমা, এবং একটি মেইল জালিয়াতি, ডিভাইস প্রবেশাধিকার জালিয়াতি, এবং সুরক্ষিত কম্পিউটারে প্রবেশের অভিযোগে ১৮ টি মামলা করা হয়।

মামলার নথি বলেছে, ভলদিমির মাইক্রোসফটের অনলাইন রিটেইল সেলস প্ল্যাটফর্মের পরীক্ষার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি ডিজিটাল গিফট কার্ডের মতো ‘মুদ্রা সঞ্চিত মান’ চুরি করে সেগুলো বিক্রি করে দেন। সেই অর্থ দিয়ে ১৬ লাখ ডলারে একটি আলিশান বাড়ি এবং এক লাখ ৬০ হাজার ডলারে একটি টেসলা কেনেন।

তবে কোর্টে ভ্লাদিমিরের দাবি, মাইক্রোসফটের টাকা হাতিয়ে নিতে নয়; উল্টো প্রতিষ্ঠান লাভবান হবে এমন বিশেষ প্রকল্প নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করছিলেন তিনি।

সাজাভোগের পর ভ্লাদিমিরকে তার দেশ ইউক্রেনে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হবে বলে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে মার্কিন বিচারবিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *