ফুডপ্যান্ডা’র আয়োজনে এবার খুলনায় ফুড কার্নিভাল

ডেস্ক রিপোর্ট: ‘না খাইলে মিস’ এই স্লোগানে ফুডপ্যান্ডার আয়োজনে নানা ধরনের খাবারের সমাহারে খুলনায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফুড কার্নিভাল উৎসব। খুলনাবাসীর নানা ধরনের পছন্দের রেস্টুরেন্টের খাবার এই কার্নিভালে পাওয়া যাচ্ছে। এতে ২৬০ টিরও অধিক রেস্টুরেন্ট অংশগ্রহন করেছে। গত ১৫ নভেম্বর শুরু হওয়া এই অনলাইন উৎসব চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। এতে গ্রাহকরা বিভিন্ন খাবারের উপর ৫০% পর্যন্ত বিশেষ ছাড় পাবে। এত বড় পরিসরে এবং এত রেস্টুরেন্টের অংশগ্রহণে এমন একটি কার্নিভাল অভূতপূর্ব একটি বিষয়। খুলনার ভোজনবিলাসীরাও এতে সমানুপাতে উৎসাহিত হয়ে উপভোগ করছে ঘরে বসেই।

খুলনা জেলা দেশের তৃতীয়তম বৃহত্তম শহর। এ জেলায় দর্শনীয় স্থানের মধ্যে খানজাহান আলী সেতু, শহীদ হাদিস পার্ক, জাতিসংঘ পার্ক, গল্লামারী লিনিয়ার পার্ক, বীরশ্রেষ্ট রুহুল আমিনের সমাধি, খুলনা বিভাগীয় জাদুঘর, দক্ষিডিহি রবীন্দ্র কমপ্লেক্স, জাহানাবাদ বনবিলাস চিড়িয়াখানা ও শিশু পার্ক অন্যতম। বিজ্ঞানী প্রফুল্ল চন্দ্র রায়, নাট্যকার শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত, সাহিত্যিক আনিস সিদ্দিকী, উপন্যাসিক কাজী আকরাম হোসেন, ক্রিকেটার সালাহউদ্দিন, আব্দুর রাজ্জাক, মেহেদী হাসান মিরাজ ও চিত্রনায়িকা মৌসুমীর জন্ম এ জেলায়।

ফুডপ্যান্ডা বাংলাদেশ এর সিইও আম্বারিন রেজা বলেন, “শুরু থেকেই গ্রাহক পর্যায়ে উল্লেখযোগ্য সাড়া অর্জনের পর আমরা আমাদের সেবা সারা দেশে ছড়িয়ে দিচ্ছি। ফুডপ্যান্ডা এখন খাবারের জগতে একটি আস্থার নাম। তারই অংশ হিসেবে ফুডপ্যান্ডা এই উৎসবের আয়োজন করেছে। এখান থেকে শহরের মানুষ তাদের পছন্দের রেস্টুরেন্টের খাবার ৫০% পর্যন্ত বিশেষ ছাড়ে অর্ডার করতে পারবে।”

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ফুড ডেলিভারি অ্যাপ ফুডপ্যান্ডা মূলত ভোজনরসিকদের ভোজনকে আরও আরামদায়ক ও উপভোগ্য করে তোলার লক্ষ্যে স্থানীয় রেস্টুরেন্টগুলোর সাথে সমন্বয় করে গ্রাহকের পছন্দের খাবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়। বর্তমানে ফুডপ্যান্ডা’র রাইডাররা বাংলাদেশের ৫৫টি শহরে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ও বিভিন্ন রেস্টুরেন্টের খাবার সরবরাহ করছে। ফুডপ্যান্ডা অ্যাপ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন – https://www.facebook.com/foodpandaBangladesh

ফুডপ্যান্ডা সম্পর্কে:

ফুডপ্যান্ডা মূলত ভোজনরসিকদের ভোজনকে আরও আরামদায়ক ও উপভোগ্য করে তোলার লক্ষ্যে স্থানীয় রেস্টুরেন্টগুলোর সাথে সমন্বয় করে গ্রাহকের পছন্দের খাবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়। যাত্রার শুরু থেকে ফুডপ্যান্ডা ১৩ টি এশীয় ও মধ্য ইউরোপের দেশগুলিতে মোট ৩২৫ টিরও বেশি শহরে ১ লক্ষাধিক রেস্টুরেন্টের খাবার সরবরাহ করে থাকে। ফুডপ্যান্ডা বর্তমানে বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, হংকং, লাওস, মালয়েশিয়া, মায়ানমার, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, রোমানিয়া এবং বুলগেরিয়ায় কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এটি আন্তর্জাতিক ফুড ডেলিভারি ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষস্থানীয় ডেলিভারি হিরো গ্রুপের আওতাধীন।
ফুডপ্যান্ডা অ্যাপ স¤পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন- www.foodpanda.com.bd

ডেলিভারি হিরো সম্পর্কে:

ডেলিভারি হিরো একটি শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক অনলাইন ফুড অর্ডার ও ডেলিভারি মার্কেটপ্লেস, যা রেস্টুরেন্ট, সক্রিয় ব্যবহারকারী এবং খাবার অর্ডারের দিক দিয়ে ইউরোপ, মধ্য প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকা (এমইএনএ), লাতিন আমেরিকা ও এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের ৪০টিরও বেশি দেশে ব্যবসায়িক প্রতিযোগীদের তুলনায় ফুড অর্ডারের হিসাবে এক নম্বর অবস্থানে রয়েছে। ডেলিভারি হিরো বিশ্বব্যাপী ২০০টিরও বেশি উচ্চ-ঘনত্বের শহুরে এলাকায় ফুড ডেলিভারি দিয়ে থাকে। প্রতিষ্ঠানটির সদর দপ্তর বার্লিনে অবস্থিত এবং ২১ হাজারেরও বেশি কর্মচারী এই প্রতিষ্ঠানের অধীনে কাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *